বিশ্বের সেরা দশটি জিন্স ব্র্যান্ড

তারণ্যের কথা যদি বলতে যাই তবে তাকে সাথে রাখতেই হবে। কেননা সে ছাড়া তারুণ্যটা যেন জমেই না। আর তারুণ্যেরও খুবই প্রিয় সে।  তাকে ছাড়া তারুণ্যকে কেমন যেন  পানসে মনে হয়। হয়তো ভাবছেন, কার কথা বা কীসের কথা বলছি। আসলে জিন্সের কথাই বলছি।

রাস্তায় তাকালে দেখা যায়, অধিকাংশ তরুণের পরনেই রয়েছে জিন্স। এ থেকেই বোঝা যায় পোশাকের ক্ষেত্রে তরুণ তরুণীদের প্রথম পছন্দই হল জিন্স। আর পছন্দ হবেই না কেন? রোদ, বৃষ্টি, ঝড়ে তারুণ্য যেমন দুরন্ত ও সতেজ, এই জিন্সও যেন ঠিক তাই। যেকোন পরিবেশে সহনশীল। এছাড়া বর্তমান বিশ্বের তরুণ তরুণীদের অধিকাংশই ফ্যাশন সচেতন। আর ফ্যাশনের ক্ষেত্রে জিন্স তো এক কাঠি সরস।

এজন্যই হয়ত সারা বিশ্বের সকল তরুণ তরুণীসহ মনের দিক থেকে তরুণদের কাছেও হট কেক। জিন্সের আকাশচুম্বী চাহিদার কারণে বাজারে রয়েছে ছোট বড় অনেক ব্র্যান্ডের জিন্স। আজকের আলোচনা তাই বিশ্বের সেরা দশটি জিন্স ব্র্যান্ড নিয়ে।

জিন্স মানেই তারুণ্য; Source: PEXELS

কেলভিন জিন্স

বিশ্বের  অন্যতম জিন্সের ব্র্যান্ড হচ্ছে ক্যালভিন জিন্স। আকর্ষনীয় ডিজাইনের জন্য কেলভিন জিন্স বিশ্ব বিখ্যাত। সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে আকর্ষণীয় স্টাইল ও ডিজাইনের কারণে কেলভিন সব বয়সী মানুষেরই আগ্রহের কেন্দ্রবিন্দু। কেলভিন জিন্সের প্রতিষ্ঠাতা কেলভিন কেলিনকে বলা হয় আধুনিক ডিজাইনের মাস্টার। এর স্বতন্ত্র ডিজাইন ও স্টাইলের কারণে কোম্পানিটি ক্রেতাদের নিকট জনপ্রিয় হতে খুব বেশী সময় নেয়নি। এর আরেকটি উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে এটি আপনাকে আপনার পছন্দমতো যেকোন রঙের জিন্স পাওয়ার নিশ্চয়তা দেয়। ক্যালভিন জিন্স মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোম্পানি হলেও আজ তা আমেরিকার বাইরেও সমানভাবে সমাদৃত।

ক্রেতারা ক্যালভিনের নিজস্ব আউটলেট ছাড়াও এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট  থেকে সহজেই ক্রয় করতে পারবেন এই বিশ্বখ্যাত জিন্সপণ্য।আরেকটি কারণে ক্যালভিন জিন্স পরিচিত। আর তা হল এর আকাশচুম্বী মূল্য। এর সর্বনিম্ন মূল্য ৫৫ ডলার।

ক্যালভিন জিন্স পরিহিত মডেল; Source: Facebook

পেপে জিন্স

পেপে জিন্স বিশ্বের হাতে গোনা কয়েকটি সেরা জিন্স ব্র্যান্ডের একটি। এই পেপে জিন্স আজ লন্ডনভিত্তিক প্রতিষ্ঠান হলেও ১৯৭৩ সালে পেপে জিন্সের যাত্রা  শুরু হয়েছিল স্পেনে। পরে এটি লন্ডনে স্থানান্তরিত করা হয়। প্রথম দিকে ক্ষুদ্র পরিসরে শুরু হলেও এর স্টাইলিশ ও আধুনিক ডিজাইন একে আজ বিশ্বখ্যাত ব্র্যান্ডে পরিণত করেছে। পেপে জিন্সের অন্যতম দিক হচ্ছে, এরা পোশাকের মানের ব্যাপারে কোনো ছাড় দেয় না। জিন্স ছাড়া এই কোম্পানির শার্ট এবং অন্যান্য পণ্য থাকলেও মূলত জিন্সের জন্যই এটি বিশ্বব্যাপী পরিচিত।

পেপে জিন্সও ব্যয়বহুল জিন্স। এর  সর্বনিম্ন  মূল্য ৩০ ডলার।

পেপে জিন্স; Source: Direktry.com

গেস জিন্স

গেস জিন্স মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের একটি জনপ্রিয় এবং উচ্চমূল্যের একটি জিন্স ব্র্যান্ড। গেসের লাক্সারী জিন্স নারী পুরুষ উভয়ের জন্যই তৈরী করা হয়। জিন্সের জন্য প্রতিষ্ঠানটি আজ বিশ্বে পরিচিতি পেলেও এদের শুরুটা ছিল হাতঘড়ি, সুগন্ধি এবং জুয়েলারি পণ্য দিয়ে। তবে এটি বাজারে পরিচিতি পায় এবং প্রতিষ্ঠিত হয় একমাত্র এর মানসম্মত এবং আকর্ষনীয় জিন্সের কারণে।

এই ব্র্যান্ডের জিন্সের সর্বনিম্ন মূল্য ৯০ ইউরো।

গেস জিন্স; Source: Pinterest

ট্রু রিলিজিয়ন

অতি অল্প সময়ে দ্রুত জনপ্রিয়তা অর্জনকারী জিন্সের নাম হচ্ছে ট্রু রিলিজিয়ন জিন্স।২০০২ সালে প্রতিষ্ঠিত আমেরিকান এই জিন্স কোম্পানির খ্যাতি অাজ বিশ্বজোড়া এতটাই বিস্তৃত যে, বিশ্বের ছয়টি মহাদেশের পঞ্চাশটি দেশে এর ৯০০ নিজস্ব শোরুম রয়েছে। এই বিস্তৃতির একমাত্র কারণ, এর আরামদায়ক ও উচ্চ মানসম্মত কাপড় এবং অভিজাত ডিজাইন। ট্রু রিলিজিয়নে স্ট্রেইট, স্লিম ফিটসহ সকল ধরনের জিন্স রয়েছে। ফলে ক্রেতাদের রয়েছে নিজস্ব রুচি ও চাহিদা মত বাছাই করে নেয়ার সুযোগ। তরুণ সমাজে সমাদৃত এই জিন্স বর্তমান বাজারে একটি নামী ব্রান্ড হিসেবে পরিচিত।

ট্রু রিলিজিয়ন জিন্সের সর্বনিম্ন মূল্য ১৩০ ডলার।

ট্রু রিলিজিওন জিন্স; Source: Pinterest

ডিজেল

বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে প্রচলিত এবং চাহিদাসম্পন্ন জিন্সের ব্র্যান্ডের নাম হল ডিজেল। ১৯৭৮ সালে ইতালিতে প্রতিষ্ঠিত হলেও ডিজেলের বিস্তৃতি আজ কিন্তু শুধুমাত্র ইটালীতে সীমাবদ্ধ নেই। সারা বিশ্বের আনাচে কানাচে সর্বত্র রয়েছে ডিজেলের চাহিদা ও ডিজেলের পণ্য। ক্রেতারা অনলাইন, অফলাইন দুটি মাধ্যম থেকেই ডিজেল জিন্স কিনতে পারেন।

ডিজেল ব্র্যান্ডের জিন্সের সর্বনিম্ন মূল্য ১৫২ মার্কিন ডলার।

ডিজেল ব্র্যান্ডের জিন্স পরিহিত মডেল; Source: Pinterest

র‌্যাংলার জিন্স

১৯৪৭ সালে প্রতিষ্ঠিত র‌্যাংলার জিন্স অনেক জিন্সপ্রেমীদের কাছে এক উন্মাদনার নাম। ব্যাক পকেটে ডব্লিউ সম্বলিত লোগো এই জিন্সের একটি স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট। ফলে একে সহজেই অালাদা করা যায় অন্যান্য ব্র্যান্ড থেকে।ওজনে হালকা হওয়ার কারণেও অনেকে এই জিন্স পরতে ভালোবাসেন।

অনলাইন এবং অফলাইনে বেশ সহজলভ্য এই জিন্সের সর্বনিম্ন মূল্য ১৮.৯৭ ডলার।

র‌্যাংলার জিন্স সব বয়সীতেই মানিয়ে যায়; Source: Pinterest

লেভি’স জিন্স

ফ্যাশন জগতে সর্বাধিক জনপ্রিয় একটি জিন্স ব্র্যান্ডের নাম লেভি’স জিন্স। ১৮৫৩ সালে প্রতিষ্ঠিত এই জিন্স বর্তমানে রাজত্ব করছে সারা পৃথিবী জুড়ে। সারা বিশ্বে সর্বাধিক বিক্রিত জিন্স ব্র্যান্ডগুলোর একটি এই লেভি’স জিন্স। লেভি’সের উল্লেখযোগ্য দিক হচ্ছে এটি সকল বয়সের সকল সইজের পণ্য পরিবেশন করে থাকে। ফলে ক্রেতাদের কাউকেই নিরাশ হতে হয় না। সারা বিশ্বে এর রয়েছে প্রমাণ সংখ্যক আউট লেট।

Source: ebay.com

লি জিন্স

আরেকটি বিখ্যাত জিন্স ব্রান্ডের নাম লি জিন্স। লি জিন্স ভিসি কর্পোরেশনের একটি পণ্য। ১৯৮৯ সাল থেকে লির যাত্রা শুরু।স্টাইলিশ এবং ট্রেন্ডি জিন্স ব্র্যান্ডের মধ্যে লি জিন্স অন্যতম। আরামদায়ক ও অাধুনিকতার সাথে মিল রেখে পথ চলার কারণে ক্রেতা সমাজের কাছে লি’র একটি আলাদা চাহিদা রয়েছে।

লি জিন্সের সর্বনিম্ন মূল্য ২৫ ডলার।

লি জিন্স পরিহিত মডেল; Source: Lee

কিলার জিন্স

১৯৮৯ সালে ভারতের মুম্বাইতে জন্ম বিশ্বের অন্যতম জিন্স ব্র্যান্ড কিলারের। সেই যে শুরু মানে ও গুণে অন্যতম হওয়ার কারণে দীর্ঘ আটাশ বছর ধরে পোশাক বাজারে রাজত্ব করে আসছে কিলার। শুধু জিন্সই নয়, কিলারের শার্টও রয়েছে বাজারে। সেগুলোও পোশাক প্রেমীদের কাছে কাঙ্খিত। ডিজাইন, কাপড়ের মান এবং সময়ের চাহিদার সাথে তাল মেলানোর করণে ক্রেতা সমাজের কাছে একটি ভালবাসার নাম হয়ে উঠেছে কিলার জিন্স।

কিলারের সর্বনিম্ন মূল্য ২০ ডলার।

কিলার জিন্স পরিহিত একদল মডেল; Source: Stylecracker

গুচ্চি জিন্স

জিন্স দুনিয়ায় অতিপরিচিত এবং বাজার কাঁপানো নাম গুচ্চি জিন্স। জিন্স বাজারে নেতৃত্বদানকারী ইতালিয়ান গুচ্চি ব্র্যান্ড ১৯২১ সাল থেকে রাজত্ব করেছে আসছে ফ্যাশন জগতে এবং তৈরী করেছে একটি আলাদা ট্রেন্ড। পঞ্চাশটিরও বেশি নিজস্ব ডিজাইনের পণ্য রয়েছে এই ব্র্যান্ডের জিন্সের। ফলে সকল রুচির, সকল বয়সের জিন্স প্রেমীদের নিজেদের পছন্দের জিন্স বেছে নিতে পারেন। জিন্স ছাড়াও গুচ্চির রয়েছে অন্যান্য পণ্য, যেমন শার্ট, বেল্ট প্রভৃতি।

গুচ্চি জিন্স; Source: GUCCI

বিশ্ব বাজারে প্রতিনিধিত্বকারী সেরা দশ জিন্সের মধ্যে অন্যতম গুচ্চি জিন্সের সর্বনিম্ন মূল্য ৩৬ ডলার।

ফিচারড ইমেজঃ montereylanes.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.